উগ্র হোন, গালিবাজ হোন, খারাপ হোন

দেশভাগের সময় বাংলাদেশের ব্রাহ্মণ ও উচ্চবর্ণের হিন্দুদের বিশাল বিশাল বাড়িঘর, ধনসম্পত্তি, জায়গা-জমি, পুকুর ভরা মাছ, গোয়াল ভরা গরু ফেলে কোনো রকমে ভারতে পালিয়ে যাওয়ার কাহিনী শুনলে মানবতার খাতিরে খারাপ লাগলেও ইতিহাসকে যখন সাক্ষী মানি–তখন ঠোঁটের কোণে একটু ক্রুর হাসি ফুটে ওঠে। সত্য বড় নির্মম, সেই সাথে তিতাও!–এ কথা একটু বিস্তারিত ভাবে ব্যাখ্যা না করলে হয়তো… Read more উগ্র হোন, গালিবাজ হোন, খারাপ হোন

প্রথাবিরোধী : স্ববিরোধিতা

তখন গ্রামের দিকে এসএসসি দেয়া মানেই ‘এডাল্ট’ হয়ে যাওয়া–এসএসসি শেষ না করলে সিনেমা দেখার অনুমতি ছিল না। এসএসসি পরীক্ষার কেন্দ্র আমাদের গ্রাম থেকে কিছুটা কাছে হওয়াতে দূরদূরান্ত থেকে আত্মীয়স্বজন-চেনাজানারা আমাদের গ্রামে এসে থেকে পরীক্ষা দিত। পরীক্ষার শেষ দিনে সবাই খুশি–একটা উৎসবমুখর পরিবেশে সবাই মিলে সিনেমা দেখতে যেত। এসএসএস পরীক্ষার শেষ দিনে ‘এডাল্ট’ হয়েছি বলে আর… Read more প্রথাবিরোধী : স্ববিরোধিতা

শুয়ার-কুত্তার বাচ্চাগুলাও নাস্তিক হয়

কেউ আকাম করলে দোষটা কার? ব্যক্তির। ব্যক্তির আকামের সাথে যদি তার ধর্ম যুক্ত থাকে, অর্থাত ব্যক্তি যদি ধর্ম মাইনা আকাম করে, তখন ব্যক্তির পাশাপাশি ধর্মেরও দোষ দেই। ঠিক কিনা? ২) একসময় ধার্মিক ছিলাম। ধর্মের সমালোচনা শুনলে রেগে যেতাম। তারপর মাথায় একটু কমনসেন্স আসল। ধর্মগ্রন্থ পড়তে গিয়া ধর্মের ফাঁকগুলা বুইঝা ধর্মরে ফাক করা শুরু করলাম। এখন… Read more শুয়ার-কুত্তার বাচ্চাগুলাও নাস্তিক হয়

অথর্ববেদের ইন্দ্ৰজাল

সুকুমারী ভট্টাচার্য জানাচ্ছেন–“বৈদিক যুগে দীর্ঘকাল পর্যন্ত অথর্ববেদকে সংহিতাসাহিত্যের অন্তর্ভুক্ত করা হয় নি।” কেন করা হয় নি, সেটা জানতে আগে চারটি বেদের বিষয়বস্তু সম্পর্কে জানতে হবে। “…ঋগ্বেদ আবৃত্তির উপযোগী কাব্য, সামবেদ সংগীতের জন্য স্তোত্র এবং যজুর্বেদ অনুষ্ঠান পরিচালনার জন্য ধর্মানুষ্ঠানকেন্দ্ৰিক গদ্য নির্দেশাবলী সরবরাহ করত।”

অথর্ববেদের ইন্দ্ৰজাল

সুকুমারী ভট্টাচার্য জানাচ্ছেন–“বৈদিক যুগে দীর্ঘকাল পর্যন্ত অথর্ববেদকে সংহিতাসাহিত্যের অন্তর্ভুক্ত করা হয় নি।” কেন করা হয় নি, সেটা জানতে আগে চারটি বেদের বিষয়বস্তু সম্পর্কে জানতে হবে। “…ঋগ্বেদ আবৃত্তির উপযোগী কাব্য, সামবেদ সংগীতের জন্য স্তোত্র এবং যজুর্বেদ অনুষ্ঠান পরিচালনার জন্য ধর্মানুষ্ঠানকেন্দ্ৰিক গদ্য নির্দেশাবলী সরবরাহ করত।”

কৃষিকেন্দ্রিক আদিম জাদুবিশ্বাস : নারী ও দেবী

ইসলামকে পচানোর জন্য নাস্তিকেরা প্রায়ই বলে থাকে যে ইসলাম নারীকে শস্যক্ষেত্রের সাথে তুলনা করেছে। আপাতদৃষ্টিতে বিষয়টিকে নারীঅবমাননা মনে হলেও যদি এই কথার উৎস বা কেন এক ধরনের কথা বলা হয়েছিল, সেটা খুঁজে দেখার চেষ্টা করা হয়, তাহলে ধর্মের উৎপত্তি বিষয়ক একটি দিকে মানুষের দৃষ্টি আকর্ষণ করা যেতে পারে। সত্যি বলতে এই কথা ইসলামেই প্রথম নয়;… Read more কৃষিকেন্দ্রিক আদিম জাদুবিশ্বাস : নারী ও দেবী

বিশ্বপ্রকৃতিতে মানববাদের স্থান কোথায়

মাঝে মাঝে মানবতা-মানববাদ জিনিসটারে ভূয়া, অস্তিত্বহীন, বায়বীয়, শুধু একটি আবেগী ব্যাপার বলে মনে হয়। যুগ যুগ ধরে প্রাণীদের যে পৈশাচিকতার কথা শুনি, সেটা যতটা না লোভ লালসা হিংসা বর্বরতার কারণে, তারও বেশি মনে হয় “প্রয়োজনে”। দুর্বলেরা চিরকাল পিছিয়ে থেকেছে, হারিয়ে গেছে… তাদের সবাইকে নিয়ে আগাতে গেলে সবাই হারিয়ে যেতে পারত।

রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাস

[প্রায় পুরোটাই কপিপেস্ট।] আমাদের দেশ ও দশের প্রাচীন ইতিহাসের অনেক চিহ্ন এখনো আদিবাসী বা ট্রাইব্যাল সমাজের মধ্যে পাওয়া যাবে। সাঁওতালরা বাংলার ওই আদিবাসী ট্রাইব্যাল সমাজগুলির মধ্যে অন্যতম বড় গোষ্ঠী। সেই প্রাচীন কালে রাষ্ট্রশক্তির আবির্ভাব হওয়ার পর থেকেই এরকম ট্রাইব্যাল সমাজগুলোর উপর রাষ্ট্রীয়ভাবে কী রকম অত্যাচার চালানো হয়েছিল, তার সুস্পষ্ট বর্ণনা দেয়া আছে চাণক্য বা কৌটিল্যের ‘অর্থশাস্ত্র’… Read more রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাস

নানা মুনির নানা মত – গবেষণা চলুক…

ভিন্ন মত পোষণ করতে না পারলে তাকে ‘মুনি’ বলা যায় না। এ থেকেই ‘নানা মুনির নানা মত’ কথাটার সৃষ্টি। এরকম মুনিদের চিন্তাভাবনা ছিল প্রথাগত ঋষিদের থেকে স্বতন্ত্র। একেক মুনি একেকটা মত বা দর্শন নিয়ে কাজ করছেন। এদের মধ্যে ঋষিদের বেদ অস্বীকার করার প্রবণতাও অনেক। অর্থাৎ এদের অনেক মতবাদ বা দর্শন আংশিক বা পুরাই “নাস্তিক্যবাদ”। কিন্তু… Read more নানা মুনির নানা মত – গবেষণা চলুক…

অন্তরাত্মার সন্ধানে (একটি আবেগী এবং মালাউনি পোস্ট)

সবে মানুষ হওয়ার পথে হাঁটতেছি। তার আগে এই সেদিনও মুসলমান ছিলাম। তার আগে হয়তো হিন্দু বা অন্য কোন ধর্মের। তার আগে বৌদ্ধ। আবার তার আগে সনাতন ধর্মাবলম্বী। তার আগে? হয়তো একমাত্র তখনই মানুষ ছিলাম। কারণ তখন ধর্ম বা ঋগবেদেও আমাদের খুঁজে পায় নাই। তারপর আর্যদের চোখে অসুর বা নিম্নকোটি লোকস্তরের কেউ হলাম–মহাকাব্যের যুগে। হ্যাঁ, বাঙালী… Read more অন্তরাত্মার সন্ধানে (একটি আবেগী এবং মালাউনি পোস্ট)