গীতাপাঠ ০৪ : মূর্তিপূজা-দেবতা-অবতার-বিরোধী কৃষ্ণ

মুহাম্মদের মত নিজ হাতে অপরের ঈশ্বরজ্ঞানে আরাধ্য-পূজিত মূর্তি ধ্বংস না করলেও গীতাপাঠ করলে একটা ব্যাপার স্পষ্ট হয় যে, কৃষ্ণ নিজেও মূর্তিপূজাবিরোধী ছিলেন। শুধু তাই নয়, দেবদেবী বা অবতার তত্ত্বের প্রতিও গীতায় বর্ণিত কৃষ্ণের বিরূপ মনোভাব ছিল।

গীতাপাঠ – ০৩ : আত্মা বিষয়ক

পোস্ট # ১ গীতার মতে, আত্মার জন্ম নাই, মৃত্যু নাই; ইনি পুনঃ পুনঃ উৎপন্ন ও বর্দ্ধিত হয়েন না; ইনি অজ (জন্মরহিত), নিত্য, শাশ্বত ও পুরাণ; শরীর বিনষ্ট হইলে ইনি বিনষ্ট হয়েন না। যেমন মনুষ্য জীর্ণ বস্ত্র পরিত্যাগ করিয়া নূতন বস্ত্র গ্রহণ করে, সেইরূপ দেহী (আত্মা) জীর্ণ দেহ পরিত্যাগ করিয়া অভিনব দেহান্তর পরিগ্রহ করেন। তাহলে প্রাণীর… Read more গীতাপাঠ – ০৩ : আত্মা বিষয়ক

গীতাপাঠ – ০২ : তুলনা

গীতা জীবনানন্দ দাশের বনলতা সেন “পাখির নীড়ের মত চোখ তুলে…”; পঙ্কজ উদাস গেয়েছেন, “চোখ তার চোরাবালি…”; ‘মৌসুমী’ মুভির সেই গান–“…যার মেঘ কালো চুল, হরিণীর চোখ…”; কিংবা, “বন্ধুর দুইটা চোখ যেন দুই নলা বন্দুক…”, আর ওদিকে গীতায় অর্জুন কৃষ্ণের বিশ্বরূপ দেখতে গিয়ে দেখল, চন্দ্র এবং সূর্য কৃষ্ণ অর্থাত, সেই বিশ্বরূপের দুই চোখ। বিশ্বরূপের ‘রূপের’ বর্ণনা পড়লে… Read more গীতাপাঠ – ০২ : তুলনা

গীতাপাঠ – ০১ : বায়ুবিহীন স্থানে প্রদীপের শিখা

এতদিন ধর্ম নিয়ে, ধর্মগ্রন্থ নিয়ে, বিশেষ করে ধর্মগ্রন্থের কোনো অনুবাদিত বাণী নিয়ে তর্ক করে দেখেছি তেমন কোনো লাভ হয় না। এখানে সবাই তালগাছ বগলে নিয়ে তর্ক করতে আসে। যেহেতু বাংলা ভাষায় কোনো ধর্মগ্রন্থ নাজিল হয়নি, তাই অনুবাদ গ্রন্থের উপর ভরসা করেই আমাদের কাজ চালাতে হয়। আর যখনই অনুবাদ হবে, তখনই তালগাছবাদীরা নানান ভাবে পিছলাবে, যেমন–অনুবাদে… Read more গীতাপাঠ – ০১ : বায়ুবিহীন স্থানে প্রদীপের শিখা